শিরোনাম :
শেষ ষোলোতে প্রতিপক্ষ হিসেবে যাকে পেল আর্জেন্টিনা নাকানি চুবানি খেয়ে লজ্জার হার হেরেও শেষ ষোলোতে পোল্যান্ড, মেক্সিকো-সৌদির বিদায় মেসির পেনাল্টি মিসের দিনে সব সমীকরণ উড়িয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউটে আর্জেন্টিনা গোটা ফুটবল বিশ্বকে তাক লাগিয়ে বলে কয়ে মেসির পেনাল্টি ঠেকালেন পোলিশ গোলকিপার! বিশ্বকাপ জিতবে আর্জেন্টিনা, মেসির মায়ের বিশ্বাস দুই ওপেনারের দুর্দান্ত জোড়া সেঞ্চুরি, দেখুন বাংলাদেশ ম্যাচের সর্বশেষ ফলাফল মেসিকে নিয়ে এক ভক্তের আবেগঘন পোস্ট যা প্রতিটি মেসি ভক্তের হৃদয় ছুয়ে যাবে, মুহুর্তেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় বিশ্বের বাঘা দুই ক্রিকেটারকে পেছনে ফেলে সূর্যকুমার ও রিজওয়ানকে নতুন রেকর্ড গড়লেন টাইগার লিটন দাস বিশ্বকাপে আবারো অঘটন, বেঞ্চের শক্তি দেখতে গিয়ে তিউনিসিয়ার শিকার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স ব্রেকিংঃ আবারও হাসপাতালে কিংবদন্তি পেলে
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:০৮ পূর্বাহ্ন

অগ্নিঝরা তাণ্ডব দেখিয়ে নিজেদের প্রমান করার পরীক্ষার সিরিজে প্রত্যাশিত জয় টাইগারদের, দেখুন ম্যাচ বিস্তারিত

প্রতিনিধির নাম / ৩৯ বার
আপডেট : মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে প্রথম টি-২০ ম্যাচে চাপে পড়েও ১৫৮ তুলেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে চাপহীন থেকেও সংগ্রহ ১৬৯। বেশি মাত্র ১১! আমিরাতের বিপক্ষে এই দুই ম্যাচ যেন টি-২০ ফরম্যাটে টাইগারদের

সামর্থ্যের জানান দিয়ে গেল। তবে প্রথম ম্যাচে কষ্ট করে জিতলেও দ্বিতীয় ম্যাচে বোলারদের দাপটে ৩২ রানের বড় জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ২-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে তলানিতে পড়া আত্মবিশ্বাস খানিকটা বাড়িয়ে, দলটা একটু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে

নিউজিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিতে পারছে। মঙ্গলবার দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত শেষ ম্যাচেও টস হারে বাংলাদেশ। মেকশিফট ওপেনার সাব্বির রহমান ও মেহেদি মিরাজ ২৭ রান যোগ করেন। সাব্বির একটি করে চার ও

ছক্কায় ১২ রান করেন। লিটন দাস এসে ঝড়ো শুরু করলেও ফিরে যান ২০ বলে চারটি চারে ২৫ রান করে। আফিফ হোসেন ১০ বলে দুই চার ও এক ছক্কায় ১৮ রান করে সাজঘরে ফেরেন। অন্য ওপেনার মেহেদি মিরাজ ক্রিজে থাকলেও সেভাবে রান বড় করে

নিতে পারেননি। ১৫তম ওভারে ৩ ৭ বলে পাঁচটি চারে ৪৬ রান করে আউট হন। চাপহীন থেকে ব্যাট করে মোসাদ্দেক হোসেন ২২ বলে করেন ২৭ রান। তিনি দুই চার ও এক ছক্কা মারেন। তবে স্লগে ইয়াসির রাব্বি ১৩ বলে এক ছয় ও এক চারে ২১ ও নুরুল হাসান

১০ বলে এক চার ও এক ছয়ে ১৯ রান করে পুঁজি বাড়িয়ে নেন। জবাব দিতে নেমে ২৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে আমিরাত। এর মধ্যে ওপেনার মোহাম্মদ ওয়াসেম ১৬ বলে ১৮ রান করেন। শুরুর ওই ধাক্কা সামাল দেন পাঁচে নামা অধিনায়ক রিজওয়ান ও ছয়ে নামা

বাসিল আহমেদ। তারা ৯০ রান যোগ করেন। এর মধ্যে রিজওয়ান ৩৬ বলে দুই ছক্কা ও দুই চারে ৫১ রান করেন। বাসিল ৪০ বলে চারটি চারে ৪২ করে আউট হন। বাংলাদেশ দলের হয়ে দারুণ বোলিং করেছেন দুই পেসার তাসকিন আহমেদ ও এবাদত হোসেন।

তাসকিন ৪ ওভারে ২২ রান দিয়ে ১ উইকেট নিয়েছেন। এর মধ্যে শেষ ওভারে তিনি দিয়েছেন ১২ রান। এবাদত ৪ ওভারে ২৪ রানে নিয়েছেন ১ উইকেট। এছাড়া স্পিনার মোসাদ্দেক ২ ওভারে ৮ রান

দিয়ে দুই উইকেট দখল করেছেন। মিরাজ ২ ওভারে দেন মাত্র ১২ রান। নাসুম ছিলেন খরুচে। তিনি ৪ ওভারে ৩৬ রান দিয়ে নেন ১ উইকেট। সাইফউদ্দিন ৩ ওভারে ২৬ রান দিয়ে উইকেট শূন্য ছিলেন।


এ জাতীয় আরো সংবাদ

Warning: Undefined variable $themeswala in /home/khandakarit/pratidinerpost.com/wp-content/themes/newsdemoten/single.php on line 229

Warning: Trying to access array offset on value of type null in /home/khandakarit/pratidinerpost.com/wp-content/themes/newsdemoten/single.php on line 229