শিরোনাম :
যত লাখ কোটি টাকা খরচ করে বিশ্বকাপ আয়োজন কাতারের, জানলে আপনার চোখ যাবে কপালে উঠে হুট করে উড়ে এলো মুস্তাফিজকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য ক্রিকেট পাড়ায় শোকের ছায়াঃ মারা গেলেন ৩৬ বছর বয়সের পাক তারকা ক্রিকেটার টাইগার ভক্তদের জন্য বিশাল সুখবর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১৬ দলের স্কোয়াডে যারা, দেখে নিন এক নজরে দারুন সুখবরঃ আমিরাতে সুযোগ না পাওয়া সৌম্য এবার ত্রিদেশীয় সিরিজে, সাথে শরিফুলও অবিশ্বাস্যকরঃ টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য আকাশ ছোয়া প্রাইজমানি ঘোষণা, কোনো ম্যাচ না জিতলেও বাংলাদেশ পাবে যত লাখ এইমাত্র পাওয়াঃ বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ংকর স্লোয়ার ফাস্ট বোলার এক টাইগার পেসার অবাক গোটা ক্রিকেট বিশ্ব, অবিশ্বাস্য কারণে কেটে নেওয়া হলো ১০ পয়েন্ট ব্রেকিং নিউজঃ অবশেষে আইসিসির দেখানো নিয়ম মেনে নিল বিসিবি, টি-২০ স্কোয়াডে আসছে পরিবর্তন
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৩৬ পূর্বাহ্ন

”আত্রাই গি.লে খাচ্ছে আবাদি জমি, হু.মকির মুখে রয়েছে দেড় শতাধিক ঘরবাড়ি ও রাস্তাঘাট”

দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি, প্রতিদিনের পোস্ট / ২৬ বার
আপডেট : শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
''আত্রাই_গি.লে_খাচ্ছে_আবাদি_জমি,_হু.মকির_মুখে_রয়েছে_দেড়_শতাধিক_ঘরবাড়ি_ও_রাস্তাঘাট''

দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি, প্রতিদিনের পোস্ট ।। ”আত্রাই গি.লে খাচ্ছে আবাদি জমি, হু.মকির মুখে রয়েছে দেড় শতাধিক ঘরবাড়ি ও রাস্তাঘাট” ।

ভা.ঙন দেখা দিয়েছে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় আত্রাই নদীতে। এতে উপজেলার ভাবকি ইউনিয়নের চাকিনীয়া গ্রামে প্রায় ২০০ একর আবাদি কৃষিজমি নদীতে বিলীন হয়েছে। হু.মকির মুখে রয়েছে দেড় শতাধিক ঘরবাড়ি ও রাস্তাঘাট।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ভাবকি ইউনিয়নের পশ্চিম-দক্ষিণে অবস্থিত চাকিনীয়া গ্রামে আত্রাই নদীর গতিপথ পরিবর্তন হয়ে গেছে। সম্প্রতি নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রায় ২০০ একর আবাদি জমি নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। স্থানীয়রা জীবিকা নির্বাহের একমাত্র সম্বল কৃষিজমি হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে। এছাড়াও প্রতিদিন ভা.ঙনের মাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ায় নদীর পাশ দিয়ে চলাচলের একমাত্র রাস্তা ও দেড় শতাধিক বসত বাড়ি নিয়ে মানুষজন দুশ্চিন্তায় দিন পার করছেন।

স্থানীয়রা জানান, দুই বছর আগে বর্ষাকালে হঠাৎ নদীর গতিপথ পরিবর্তন হয়ে আবাদি জমির ওপর দিয়ে স্রোত যায়। এতে প্রায় ২০ একর আবাদি জমি নদীতে পরিণত হয়। এরপর গত বছর বর্ষাকালে আবারও প্রায় ১০০ একর জমি নদীতে বিলীন হয়। আর এ বছর ভা.ঙতে ভা.ঙতে একদম বসত বাড়ির কাছে এসে পৌঁছেছে। এমনকি চলাচলের একমাত্র রাস্তাও যেকোনো সময় ভে.ঙে যেতে পারে। বাড়িঘরগুলো নিয়ে হু.মকির মধ্যে রয়েছেন তারা। নদী ভাঙন রোধে ও বাড়িঘর রক্ষার জন্য নদীতে বাঁধ নির্মাণ করতে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও স্থানীয় প্রশাসনকে জানিয়েছেন।

ভাবকি গ্রামের পশিরদ্দীন বলেন, গত দুই বছরে আমার ১৪ বিঘা জমি আত্রাই নদীতে চলে গেছে। জমি নদীতে চলে গেলেও কর্তৃপক্ষ নদী ভা.ঙন রোধে কোনো উদ্যোগ নেয়নি। জমি নদীতে চলে যাওয়ায় সংসার চালাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে।

চাকিনীয়া গ্রামের আব্দুল গনি বলেন, ৪ বিঘা জমিতে ধান চাষ করে আমার সংসার চলত। এ বছর নদীতে প্রায় ৩ বিঘা জমি চলে গেছে। আমার শেষ সম্বল জমি ও গাছপালা বিলীন হয়ে গেছে। এখন বাড়ি নিয়েও হু.মকির মধ্যে রয়েছি। দ্রুত নদী ভা.ঙন রোধে ব্যবস্থা না নিলে বাড়ি-ভিটা সব নদী গি.লে খাবে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মকবুল হোসেন বলেন, আমারও ৫ বিঘা জমি নদীতে চলে গেছে। প্রতি বছর বর্ষার সময় নদীর পানি বেশি হলে ভা.ঙন শুরু হয়। তখন একের পর এক আবাদি ধানী জমি নদীতে চলে যায়। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের পরামর্শে নদী ভা.ঙনের বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবগত করেছি। তারা জানিয়েছেন, দ্রুত নদী ভা.ঙন রোধে ব্যবস্থা নেবেন।

ভাবকি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল আলম তুহিন বলেন, আত্রাই নদী ভা.ঙনের বিষয়ে আমি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। দ্রুত নদী ভা.ঙন রোধে একটা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তারা জানিয়েছেন।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ। হিমেল/প্রতিদিনের পোস্ট


এ জাতীয় আরো সংবাদ

Warning: Undefined variable $themeswala in /home/khandakarit/pratidinerpost.com/wp-content/themes/newsdemoten/single.php on line 229

Warning: Trying to access array offset on value of type null in /home/khandakarit/pratidinerpost.com/wp-content/themes/newsdemoten/single.php on line 229