শিরোনাম :
যত লাখ কোটি টাকা খরচ করে বিশ্বকাপ আয়োজন কাতারের, জানলে আপনার চোখ যাবে কপালে উঠে হুট করে উড়ে এলো মুস্তাফিজকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য ক্রিকেট পাড়ায় শোকের ছায়াঃ মারা গেলেন ৩৬ বছর বয়সের পাক তারকা ক্রিকেটার টাইগার ভক্তদের জন্য বিশাল সুখবর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১৬ দলের স্কোয়াডে যারা, দেখে নিন এক নজরে দারুন সুখবরঃ আমিরাতে সুযোগ না পাওয়া সৌম্য এবার ত্রিদেশীয় সিরিজে, সাথে শরিফুলও অবিশ্বাস্যকরঃ টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য আকাশ ছোয়া প্রাইজমানি ঘোষণা, কোনো ম্যাচ না জিতলেও বাংলাদেশ পাবে যত লাখ এইমাত্র পাওয়াঃ বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ংকর স্লোয়ার ফাস্ট বোলার এক টাইগার পেসার অবাক গোটা ক্রিকেট বিশ্ব, অবিশ্বাস্য কারণে কেটে নেওয়া হলো ১০ পয়েন্ট ব্রেকিং নিউজঃ অবশেষে আইসিসির দেখানো নিয়ম মেনে নিল বিসিবি, টি-২০ স্কোয়াডে আসছে পরিবর্তন
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৬:৪১ পূর্বাহ্ন

ওসির উপস্থিতিতে হ,ত্যার পরিকল্পনার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিদিনের পোস্ট / ৫৮ বার
আপডেট : বুধবার, ২৪ আগস্ট, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রতিদিনের পোস্ট || ওসির উপস্থিতিতে হ,ত্যার পরিকল্পনার অভিযোগ।

বগুড়ার ধুনট থানার ওসির রুমে তার উপস্থিতিতে মা,দক ব্যবসায়ী আরিফুল ইসলাম হিটলু নামে এক যুবককে হ,ত্যার পরিকল্পনার অভিযোগ উঠেছে।

নি,হতের স্ত্রী শেফালী খাতুন ন্যায় বিচারের জন্য আবেদন জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করেন। এরপর ২৩ মে পুলিশ হেডকোর্টার থেকে নির্দেশ আসার পর বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তদন্ত শুরু করেন। তদন্তকালে সাক্ষীরা থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালার নির্দেশে এবং ওসির রুমে বসে হিটলুকে খুনের পরিকল্পনা করা হয় বলে লিখিত জবানবন্দী দিয়েছেন।

ইতোমধ্যে হিটলু হ,ত্যা মা,মলাটি ধুনট থানা পুলিশের কাছ থেকে স্থানান্তর করে তদন্তভার দেওয়া হয়েছে সিআইডিকে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চলতি বছরের ১৬ এপ্রিল রাতে ধুনট উপজেলার নিমগাছি ইউনিয়নের বেড়েরবাড়ি গ্রামে আরিফুল হিটলুকে কু,পিয়ে ও পিটিয়ে হ,ত্যা করে দুর্বৃত্তরা। পরে তার লাশ গুম করার উদ্দ্যেশে পার্শ্ববর্তী শাজাহানপুর উপজেলায় একটি কবরে মাটিচাপা দেওয়া হয়। পরদিন ১৭ এপ্রিল হিটলুর লাশ পুলিশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় নি,হত হিটলুর স্ত্রী শেফালী খাতুন ১৯ জনকে আসামি করে ১৯ এপ্রিল ধুনট থানায় মা,মলা করেন।( মামলা নম্বর-১১)।

ওই সময় ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা বলেছিলেন, ‘হিটলুর অত্যাচারে অতিষ্ঠ ছিল শাজাহানপুর ও ধুনট উপজেলার লোকজন। তার বিরুদ্ধে ধুনট থানায় মা,দক, পুলিশের ওপর হা,মলা, জু,য়া খেলাসহ ৮টি মামলা রয়েছে। তিন মাস আগে হিটলু জামিনে মুক্ত হয়। মালেক নামে এক যুবককে কু,পিয়ে আ,হত করার ঘটনায় এলাকার লোকজন একত্র হয়ে হিটলুকে ধরে এ ঘটনা ঘটায় বলে জানতে পেরেছি।’

নি,হত হিটলুর স্ত্রী শেফালী খাতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন, ‘তার স্বামীর হ,ত্যা মা,মলার ৪ নম্বর আসামি পলাশকে গত ১৪ এপ্রিল সন্ধ্যায় হিটলু ১ কেজি গাঁ,জাসহ আ,টক করে থানায় খবর দেয়। পুলিশ আসার আগেই পলাশ গাঁ,জা ও মোটরসাইকেল রেখে পালিয়ে যান। পুলিশ গাঁ,জাসহ মোটরসাইকেল থানায় নিয়ে যায়। পরের দিন থানার ওসি মা,মলা না নিয়ে মোটরসাইকেল ছেড়ে দেন।

অভিযোগে শেফালী আরো উল্লেখ করেন, ওই ঘটনার জেরে গত ১৬ এপ্রিল বিকেলে পলাশ ও তার শ্বশুর জাহাঙ্গীরসহ কয়েকজন আসামি থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালার রুমে বসে হিটলুকে খু,নের পরিকল্পনা করেন। সেখানে থানার ওসি হিটলুকে খু,নের নির্দেশ দেন। হিটলু খু,নের পর থানায় মা,মলা দিতে গেলে ওসি মামলা নিতে অস্বীকৃতি জানায় এবং বলেন হিটলু গনপিটুনিতে নি,হত হয়েছেন।
বাদীর অভিযোগ ১৯ এপ্রিল থানায় মা,মলা রেকর্ড হলেও থানার ওসি আসামিদের পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করেন এবং আ,সামিদের গ্রে,প্তারে কোনো উদ্যোগ নেননি।

নি,হত হিটলুর বাবা আব্দুল জলিল বলেন, ‘ আমার ছেলে আগে বিএনপির রাজনীতি করতো। খু,ন হওয়ার অনেক আগেই হিটলু যুবলীগে যোগ দেয়। হিটলু থানা পুলিশকে মাসোহারা দিয়ে এলাকায় জু,য়া চালাতো এবং বালির ব্যবসা করতো।  ডিএসবি পুলিশের এক সদস্য হিটলুর কাছে টাকা নেওয়ার পরেও জু,য়ার আসরের ছবি তোলে। এ কারণে হিটলু সেই পুলিশকে মা,রধর করে। এরপর পুলিশ হিটলুকে ধরে নিয়ে গিয়ে তার বিরুদ্ধে একের পর এক মি,থ্যা মা,মলা দায়ের করে।’

অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, ‘এটা মি,থ্যা কথা। এ বিষয়ে আমার কোনো ধারণা নেই। ওখানে মারা,মারি হয়েছে। গন্ডগোল হয়েছে।’

হিটলু হ,ত্যা মা,মলার বর্তমান তদন্তকারী কর্মকর্তা বগুড়া সিআইডির পুলিশ পরিদর্শক আব্দুল হান্নান বলেন, ‘মা,মলার প্রধান আসা,মিসহ ৫ জনকে গ্রে,প্তার করা হয়েছে। অন্য আ,সামিরা উচ্চ আদালত থেকে জামিনে আছেন।’

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শরাফত ইসলাম বলেন, ‘হেডকোর্টার থেকে নির্দেশ আসার পর তদন্ত শুরু হয়েছে। তদন্ত চলছে।’

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালার বিরুদ্ধে ধ,র্ষণের আলামত নষ্টের অভিযোগ ওঠে। গত ২ আগস্ট ধর্ষণের শিকার কিশোরীর মা বগুড়ার পুলিশ সুপার বরাবর এ বিষয়ে অভিযোগ করেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ সুপার তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। পরে মামলার তদন্তভার বগুড়া জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) দেওয়া হয়।

ওই কিশোরীর মা অভিযোগে উল্লেখ করেন, তার মেয়েকে ধ,র্ষণের বিষয়টি জানার পর তিনি ধুনট থানায় মা,মলা দায়ের করেন। মাম,লার তদন্তকারী কর্মকর্তা ছিলেন থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা। তদন্ত চলাকালীন তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামি মুরাদুজ্জামান মুকুলকে গ্রে,প্তার করেন এবং তার কাছ থেকে ধ,র্ষণের ভিডিও, মোবাইল ফোন জব্দ করেন। এরপর তদন্তকারী কর্মকর্তা গত ১৪ মে তাকে ডেকে ধ,র্ষণের ভিডিওগুলো দেখান এবং তাকে জানান উদ্ধার হওয়া ভিডিওগুলো সিডি করে উদ্ধারকৃত ফোনের সঙ্গে সিআইডিতে পাঠানো হবে। কিন্তু তদন্তকারী কর্মকর্তা জব্দ তালিকায় এবং আলামত ফরেনসিকে পরীক্ষার জন্য পাঠানো তালিকায় উদ্ধার হওয়া ভিডিওর সিডি পাঠানোর বিষয় উল্লেখ না করে শুধু উদ্ধার হওয়া ২টি মোবাইল পাঠিয়েছেন।’

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা,ছবি,ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ।
মাহমুদ/প্রতিদিনের পোস্ট।


এ জাতীয় আরো সংবাদ

Warning: Undefined variable $themeswala in /home/khandakarit/pratidinerpost.com/wp-content/themes/newsdemoten/single.php on line 229

Warning: Trying to access array offset on value of type null in /home/khandakarit/pratidinerpost.com/wp-content/themes/newsdemoten/single.php on line 229