বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ১১:৪৫ অপরাহ্ন

কিশোরীকে বাঁচাতে গিয়ে নৈশপ্রহরীর মৃ’ত্যু

জেলা প্রতিনিধি, লক্ষ্মীপুর / ৫০ বার
আপডেট : শনিবার, ৪ জুন, ২০২২

জেলা প্রতিনিধি, লক্ষ্মীপুর || কিশোরীকে বাঁচাতে গিয়ে নৈশপ্রহরীর মৃ’ত্যু।

লক্ষ্মীপুরে রামগঞ্জে বাসের ভেতর এক কিশোরীকে ধ’র্ষণ থেকে বাঁচাতে গিয়ে হৃদ’যন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মো. শাহজাহান (৪৫) নামের এক নৈশপ্রহরী মারা গেছেন।(তিন জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রামগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে এ ঘটনা ঘটে।

এ ছাড়া ধ’র্ষণচেষ্টার ঘটনায় কিশোরী বাদী হয়ে মা’মলা করে। এতে অভিযুক্ত বাসের সহকারী আজাদ হোসেনকে গ্রে’প্তার করেছে পুলিশ। নি’হত শাহজাহান মিয়া রামগঞ্জ পৌরসভার পশ্চিম কাজিরখীল এলাকার নুরুজ্জামান মিয়ার ছেলে।

শনিবার (৪ জুন) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এসব নিশ্চিত করেন রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক।

পুলিশ ও মা’মলা সূত্র জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই কিশোরী নোয়াখালীর চাটখিল থেকে সোনাপুর যাওয়ার উদ্দেশ্যে ভুলবশত জননী পরিবহনের একটি বাসে উঠে পড়ে। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রামগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে এলে তাকে নামিয়ে দেন বাসের চালক ও সহাকারী। এ সময় কিশোরী তাদের জানালে তাকে চট্টগ্রামগামী নীলাচল নামের একটি বাসে বসতে বলেন তারা। পরে জননী বাসের সহকারী আজাদ ও স্থানীয় যুবক এমরান হোসেনসহ তিনজন সংঘ’বদ্ধ হয়ে কিশোরীকে ধ’র্ষণের চেষ্টা করেন।

এ সময় কিশোরী চিৎকার শুরু করলে বাসস্ট্যান্ডের নৈশপ্রহরী শাহজাহান এগিয়ে আসেন। তিনি ধ’র্ষণে বাধা দিতে গেলে যুবকদের সঙ্গে তার বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। একপর্যায়ে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই শাহজাহান লু’টিয়ে পড়েন। পরে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে এমরান ও তার সহযোগীরা পালিয়ে যান।

পরে স্থানীয় ব্যক্তিরা কিশোরীকে উ’দ্ধার করে। এ সময় অভিযুক্ত বাসের সহকারী আজাদকে আ’টক করে পুলিশে খবর দেন তারা। পুলিশ ঘটনাস্থল এসে আজাদকে আ’টক করে এবং নৈশপ্রহরীর ম’রদেহ সদর হাসপাতালের ম’র্গে পাঠিয়ে দেয়।

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমদাদুল হক বলেন, ভুক্তভোগী কিশোরী রাতে বাদী হয়ে তিনজনের বি’রুদ্ধে মা’মলা করেছে। আটক আজাদকে সেই মা’মলায় গ্রে’প্তার দেখানো হয়েছে। সহযোগী অন্যদের গ্রে’প্তারে চেষ্টা চলছে।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ। আশিকুল/প্রতিদিনের পোষ্ঠ


এ জাতীয় আরো সংবাদ