বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০১:১২ অপরাহ্ন

ঘাটাইলে শতাধিক শিক্ষার্থী বয়কট করলো পরীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৬ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২ জুন, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক || ঘাটাইলে শতাধিক শিক্ষার্থী বয়কট করলো পরীক্ষা ।

প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা বয়কট করে বিক্ষোভ ও আন্দোলনে রাস্তায় নেমেছেন সাগরদিঘী উচ্চ বিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষার্থী। তাদের দাবি, প্রাক নির্বাচনী পরীক্ষায় অতিরিক্ত ফি ও সেশন নেয়ার প্রতিবাদে এ কর্মসূচি করেন। তাছাড়া তারা কেউ পরীক্ষা দেবে না বলে দাবি করেন।

আজ বৃহস্পতিবার (২ জুন) টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সাগরদিঘী উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী পরীক্ষা বয়কট করেছেন। তারা পরীক্ষা ফি ও বেতন বেশি নেয়ায় এ আন্দোলন করেন। সাগরদিঘী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে সাগরদিঘী বাজারের চৌরাস্তায় প্রায় ঘন্টাব্যাপী এ আন্দোলন কর্মসূচী করেছেন। পরে পুলিশ তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফিরে যেতে অনুরোধ করেন।

জানা যায়, পরীক্ষার ফি ও বেতন চাওয়া হচ্ছে ২৫’শ টাকা। এতে দরিদ্র শিক্ষার্থীরা অর্থাভাবে পরীক্ষায় অংশ নিতে পারছে না। তাদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বের করে দেন বলে মৌখিক অভিযোগ তুলেছেন শিক্ষার্থীরা ।

নাজমুল হোসেন, রাকিব, সোহান, ইমরান, শিহাব, শাহারিয়ারসহ একাধিক শিক্ষার্থীরা বলেন, আশেপাশের বিভিন্ন স্কুলে এতো ফি নেয় না। আমাদের কাছে থেকে চাপ দিয়ে ফি ও বেতন চাচ্ছে। পরে শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করলে পরীক্ষার কেন্দ্রে প্রবেশে বাঁধা দিয়ে গেইটে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে। পরে আমরা আন্দোলনে নেমেছি।

এই প্রসঙ্গে প্রধান শিক্ষক মো. রহমত উল্লাহ বলেন, বিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী ফি নেয়া হচ্ছে। বিদ্যালয়ে কোন তালা ঝুলানো হয়নি। যদি তাই হতো ৩৭জন শিক্ষার্থী কিভাবে পরীক্ষা দিলো।

এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে কিছু জানতাম না। তবে যদি কোন অনিয়ম হয়ে থাকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ। আশিকুল/প্রতিদিনের পোষ্ঠ


এ জাতীয় আরো সংবাদ

Warning: Undefined variable $themeswala in /home/khandakarit/pratidinerpost.com/wp-content/themes/newsdemoten/single.php on line 229

Warning: Trying to access array offset on value of type null in /home/khandakarit/pratidinerpost.com/wp-content/themes/newsdemoten/single.php on line 229