বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ১০:৪০ অপরাহ্ন

নরসিংদীতে ধর্ষন চেষ্টা মামলায় শ্রমিকদলের সভাপতি ও পৌরসভার কাউন্সিলর গ্রেপ্তার

নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি / ৪৯ বার
আপডেট : শনিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২১
নরসিংদীতে_ধর্ষন_চেষ্টা_মামলায়_শ্রমিকদলের_সভাপতি_ও_পৌরসভার_কাউন্সিলর_গ্রেপ্তার

নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি: নরসিংদীর মনোহরদীতে ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় জাকির হোসেন আকন্দ বাবুল (৫০) নামে এক কাউন্সিলরকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

আজ শনিবার বিকাল ৫টায় পৌর এলাকার আকন্দবাড়ী আউয়াল মেম্বারের বাড়ীর পাশের জামে মসজিদের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। শনিবার রাত ৯টায় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব ১১ নরসিংদীর ক্যাম্প কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মো. তৌহিদুল মবিন খাঁন এই তথ্য জানান।

গ্রেপ্তারকৃত বাবুল আকন্দ একই এলাকার মৃত আবদুল কুদ্দুস আকন্দের ছেলে। সে মনোহরদী পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং উপজেলা শ্রমিকদলের সভাপতি। র‌্যাব-১১ নরসিংদী সিপিএসসি সূত্রে জানা যায়, কাউন্সিলর জাকির হোসেন আকন্দ বাবুল এলাকার যুবতী মেয়ে এবং গৃহবধুদের বিভিন্নভাবে উত্যক্ত করতো।

সে গত ২০১৯ সালে নিজ মেয়ের বান্ধবীকে যৌন নিপীড়ন করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে। সে সময় গ্রাম্য শালিসে ৮০ হাজার টাকা জরিমানা দিয়ে বিষয়টি তিনি মিমাংসা করেন। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার সকাল ৮টায় মনোহরদী পৌর এলাকার আকন্দবাড়ী জামে মসজিদের সাবেক ইমাম আহসান উল্লাহের স্ত্রী আমেনা বেগম বাড়ীতে একা থাকার সুযোগে তাকে জড়িয়ে ধরেন এবং ধর্ষণের চেষ্টা করেন।

বিষয়টিতে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করলে ভিকটিমের স্বামী আহসান উল্লাহ ফেসবুক লাইভে তাহার স্ত্রী নির্যাতনের বিষয়টি প্রকাশ করেন এবং বিচার দাবী করেন। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে র‌্যাব-১১ নরসিংদী ক্যাম্পের দৃষ্টিগোচর হয়। এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব বিষয়টি তদন্ত করে সত্যতা যাচাই করে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের প্রদত্ত তথ্য মতে প্রাথামিকভাবে বিষয়টির সত্যতা পাওয়ায় শনিবার বিকাল ৫টায় বাবুল আকন্দকে আটক করে র‌্যাব। র‌্যাব-১১ নরসিংদীর ক্যাম্প কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মো. তৌহিদুল মবিন খাঁন বলেন, বাবুল আকন্দ কর্তৃক এলাকার আরও যুবতী মেয়ে এবং গৃহ বধুদের যৌন হয়রানীর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এই ঘটনায় নির্যাতিত নারীর স্বামী আহসান উল্লাহ বাদী হয়ে মনোহরদী থানায় বাবুল আকন্দের বিরুদ্ধে ধর্ষণচেষ্টা মামলা দায়ের করেছেন। আসামীকে শনিবার রাতে মনোহরদী থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। এদিকে ধর্ষক কাউন্সিলর বাবুল আকন্দের গ্রেপ্তারের খবরে পৌরসভায় ৫নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় জুতা মিছিল করেছে এলাকাবাসী। তাঁরা বাবুল আকন্দের বেপরোয়া একের পর এক নারী নির্যাতনের ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবী জানান। তবে কাউন্সিলর বাবুল আকন্দের স্ত্রী নার্গিস বেগম সাংবাদিকদের জানান, বাবুল আকন্দ নির্দোষ। দুইবারের নির্বাচিত কাউন্সিলর বাবুল আকন্দকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে।

এই ওয়েবসাইটের লেখা আলোকচিত্র, অডিও ও ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পুর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ।


এ জাতীয় আরো সংবাদ