বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ১০:৩৪ অপরাহ্ন

রায়পুরায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে তিনজনের মৃ’ত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি, নরসিংদী জার্নাল / ৫৪ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১১ নভেম্বর, ২০২১
নরসিংদীতে_নির্বাচনকে_কেন্দ্র_করে_সংঘর্ষ,_ব্যালট_পেপার_ছিনতাই_পুলিশ_আনসার_আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি, প্রতিদিনের পোস্ট: নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন এবং এলাকার আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সং’ঘ’র্ষে তিনজন নি’হত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার বাঁশগাড়ি ইউনিয়নে এই ঘটনা সংঘটিত হয়। ঘটনার পর থেকে পুরো ইউনিয়নে আত’ঙ্ক বিরাজ করছে। তবে স’হি’সংতায় হতাহত ও নি’হতের ঘটনা ঘটলেও বাশঁগাড়ীতে ভোট গ্রহণ কার্যক্রম চলছে।

নি’হত ৩ ব্যক্তি বাঁশগাড়ী গইউনিয়নের হেকিম মিয়ার ছেলে সালাউদ্দিন মিয়া (৩০), একই এলাকার সিরাজ মিয়ার ছেলে দুলাল মিয়া (৪৫) ও হক মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর (২৭)। এর মধ্যে সালাউদ্দিন ও জাহাঙ্গীর বাঁশগাড়ী ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী রাতুল হাসান জাকিরের সমর্থক। দুলাল বর্তমান চেয়ারম্যান ও নৌকার প্রার্থী আশ্রাফুল হক এর সমর্থক।

স্থানীয় অধিবাসীদের সাথে কথা বলে জানায়, বাঁশগাড়ি ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী নৌকা প্রতীকে আশরাফুল হক সরকার প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন আওয়ামীলীগের স্বতন্ত্র বি’দ্রো’হী প্রার্থী মোবাইল ফোন প্রতীকের জাকির হোসেনের সাথে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এলাকায় বেশ কয়দিন ধরেই উ’ত্তে’জনা বিরাজ করছে। বুধবার রাত সাড়ে ৩টায় বাঁশগাড়ি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আশরাফুল হক তার সমর্থক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল মেম্বার, লতিফ আলী, ডা. হবি, সেলিম মেম্বারের নেতৃত্বে দলবল নিয়ে বাঁশগাড়ি হিন্দুপাড়া হাসপাতালের কাছে ব্রীজের কাছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হাসান আলী সারজার ছেলে স্বতন্ত্র প্রার্থী রাতুল হাসান জাকিরের সমর্থনকারীদের ওপর অ’তর্কি’ত হামলা চালায়। এতে ক’কটেল বি’স্ফো’রণ ও গু’লি ছুড়া হয়। এ সময় দুই পক্ষ সংঘ’র্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে গু’লিবি’দ্ধ হয়ে স্বতন্ত্রপ্রার্থী রাতুল হাসান জাকিরের সমর্থক সালাউদ্দিন, জাহাঙ্গীর ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আশরাফুল হকের সমর্থক দুলাল মিয়া মা’রা যান। রায়পুরা থানার আইন’শৃঙ্খলা বাহনী খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এদিকে বেলা ১১টার দিকে জাল ভোট দেওয়াকে কেন্দ্র করে জেলার রায়পুরা উপজেলা আমিরগঞ্জ ইউনিয়নের করিমগঞ্জ গ্রামের সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোট গ্রহণ কেন্দ্রে ব্যাপক সংঘ’র্ষ মা’রা’মা’রির ঘটনা ঘটে। এতে সাইফুল নামে এক ব্যক্তির মাথায় জ’খ’ম এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) গোবিন্দ সরকার বলেন, আমরা বাশঁগাড়ির সংঘর্ষে তিনজন নি’হ’তের খবর পেয়েছি। তবে আমরা একজনের ম’র’দেহ উদ্ধার করতে পেরেছি। বাকীদের বিষয়ে তথ্য নেওয়া হচ্ছে। আমরা নিশ্চিত হওয়ার পরে মৃ’তের প্রকৃত সংখ্যা বলতে পারব।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পুর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ।


এ জাতীয় আরো সংবাদ